নয়াসড়কে ‘মাদানী চত্বর’এর উদ্বোধন



সিলেট নগরীর ঐতিহ্যবাহী নয়াসড়ক চত্বরের নতুন নামকরণ করা হয়েছে। এখন থেকে এ চত্বরের নাম হবে ‘মাদানী চত্বর’। উপমহাদেশের প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন, বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম সিপাহসালার ভারতের বিখ্যাত ইসলামী বিদ্যাপীঠ দারুল উলুম দেওবন্দের সাবেক সদরুল মুদাররিসীন আওলাদে রাসুল (সা.) হযরত মাওলানা সৈয়দ হুসাইন আহমদ মাদানীর (রহ.) নামে এখন থেকে এ চত্বরটির নামকরণ হবে।

রোববার সন্ধ্যায় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও মাওলানা সৈয়দ হুসাইন আহমদ মাদানী (রহ.) এর সুযোগ্য পুত্র মাওলানা সৈয়দ আসজাদ মাদানী (রহ.) এ চত্বরের আনুষ্টানিক উদ্বোধন করেন। এর আগে নয়াসড়ক জামে মসজিদে মাগরিবের নামাজ আদায় শেষে আগত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে বয়ান পেশ করেন তিনি। এসময় দেশবাসী ও বিশ্বের মোসলমান নর-নারীর কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করা হয়। পরে নয়াসড়কে অবস্থিত ‘মাদানী চত্বরের উদ্বোধন করেন।
উদ্বোধন শেষে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী জানান, সিলেটের ইসলামী মূল্যবোধ বিকাশের ইতিহাসে উপমহাদেশের প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন মাওলানা হুসাইন আহমদ মাদানীর নাম এখনো ঘরে ঘরে। তিনি বলেন, উপমহাদেশের এই ধর্মীয় ব্যক্তিত্বের সাথে নয়াসড়ক জামে মসজিদের অনেকদিনের স্মৃতি বিজড়িত।
তিনি জানান, ১৯২২ সাল থেকে তিনি সিলেটের সঙ্গে সম্পর্কিত হন। প্রথম দিকে একটানা তিন বছর অবস্থান করেন। পরে ১৯৪৭ পূর্ববর্তী সময়ে প্রতিবছর রমজান মাসে সিলেট আসতেন। তাঁর কেন্দ্র ছিল ঐতিহাসিক নয়াসড়ক জামে মসজিদ। আজও এই প্রখ্যাত আলেমের স্মৃতি সিলেট নগরীতে সজীব রয়েছে। আমরা সকলের পবিত্র আবেগের প্রতি সম্মান পোষণ করি। তাই তাঁর স্মৃতি সংরক্ষণের জন্যই নয়াসড়ক পয়েন্টকে ‘মাদানী চত্বর’ নামে নামকরণ করা হয়েছে।