নগরবাসীকে সর্বোচ্চ সেবা প্রদান করতে চালু হচ্ছে নগর এক্সপ্রেস- মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী



সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, নগরবাসীকে সর্বোচ্চ সেবা প্রদান করতে সিলেটে ‘নগর এক্সপ্রেস’ নামে একটি গণপরিবহন শিগগিরই চালু হচ্ছে। নগরী ও এর আশপাশ এলাকার লোকজনকে সেবা দিতে ৪১টি বাস নিয়ে যাত্রা শুরু করবে প্রত্যাশিত এ পরিবহনের।

মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) বিকেলে নগরীর শাহজালাল উপশহরস্থ একটি অভিযাত হোটেলের হলরুমে ‘নগর এক্সপ্রেস ড্রাইভার ট্রেনিং প্রোগ্রাম’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ড্রাইভার ট্রেনিং প্রোগ্রাম অনুষ্ঠানে মেয়র আরো বলেন, নরবাসীকে সর্বোচ্চ সেবা দিতে নগর এক্সপ্রেস চালু হচ্ছে। তাই নগর এক্সপ্রেসের জন্য দক্ষ চালক প্রয়োজন। মেয়র বলেন, সড়ক দুর্ঘটনার অনেকগুলো কারণের মধ্যে অদক্ষ চালকদের বেপরোয়া গতিই হচ্ছে অন্যতম কারণ। তাই নগর এক্সপ্রেসের জন্য প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত দক্ষ প্রকৃত লাইসেন্সধারী চালকদেরই বাছাই করে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

মেয়র বলেন, নগর এক্সপ্রেসের প্রত্যেক ড্রাইভার ইন্সুরেন্সের অন্তর্ভূক্ত থাকবেন। তারা প্রত্যেকে দুই লাখ টাকা করে ইন্সুরেন্স সুবিধা ভোগ করবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনের সিডিউলপ্রাপ্তি সাপেক্ষে শিঘ্রই আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হবে এ বাস সার্ভিসের।

নগর এক্সপ্রেসের মালিক পক্ষ জানায়, নগরীতে সর্বমোট ৪১টি বাস নিয়ে নগর এক্সপ্রেসের যাত্রা শুরু হবে । বাসগুলো প্রস্তুত রয়েছে। প্রাথমিকভাবে এ বাসগুলো টুকেরাবাজার থেকে মেডিকেল রোড হয়ে হেতিমগঞ্জ যাবে। টুকেরবাজার থেকে বন্দর টু বটেশ্বর, সুরমা মার্কেট পয়েন্ট থেকে হেতিমগঞ্জ ও এয়ারপোর্ট থেকে কদমতলী হয়ে মোগলাবাজারের হাজীগঞ্জে যাবে। চালকসহ সুপাভাইজার নিয়োগ সম্পন্ন হয়েছে। ভাড়াও নির্ধারণ করা হয়েছে। যাত্রীরা টিকিট কেটে সেবা গ্রহণ করবেন।

নিটল মটরস সিলেটের ডিলার এহতেশামুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে আয়োজিত ড্রাইভার ট্রেনিং প্রোগ্রামে বক্তব্য রাখেন, নগর এক্সপ্রেস সিটি বাস মালিক গ্রুপের সদস্য সৈয়দ মইন উদ্দিন সুহেল, মাহবুবুল হক চৌধুরী, এনামুল কুদ্দুস, খন্দকার কাওসার আহমদ রবি ও তৌসিক আহমদ চৌধুরী। ‘নগর এক্সপ্রেস ড্রাইভার ট্রেনিং প্রোগ্রামের ট্রেইনার ছিলেন নিটল মটরসের সার্ভিস প্রধান ইঞ্জিনিয়ার মো. নাজিম উদ্দিন। প্রোগ্রামের সার্বিক সমন্ময় করেন নিটল মটরস এর ব্যবস্থাপক শাহআলম বাহদুর।