দায়িত্ব নেয়ার এক’শ কর্ম দিবসে ফেসবুক পেজের মাধ্যমে নগরবাসীর সামনে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী: উন্নয়ন ভাবনা ও কর্মপরিকল্পনা



সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী গত নির্বাচনে নগরবাসীকে কথা দিয়েছিলেন তিনি যদি দ্বিতীয় বারের মত মেয়র নির্বাচিত হন, তবে জনস্বার্থে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রতি এক’শ কর্ম দিবসের উন্নয়ন কার্যক্রম, উন্নয়ন ভাবনা ও কর্মপরিকল্পনা নিয়ে এই নগরীর মানুষের সামনে উপস্থিত হবেন। সেই কথা রেখেছেন তিনি।

গত বছরের ৮ অক্টোবর দায়িত্ব নেয়ার পর সোমবার (১১মার্চ) এক’শ কর্মদিবস পূর্ণ হওয়ায় উন্নয়ন কার্যক্রম, উন্নয়ন ভাবনা ও কর্মপরিকল্পনা নিয়ে তার ফেসবুক পেজের মাধ্যমে নগরবাসীর সামনে হাজির হন সিসিকের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। ফেসবুক পেজে প্রায় ২৫ মিনিটের পোষ্ট করা ভিডিওতে নগরীর নানা উন্নয়ন ভাবনা, চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম, ওয়াইফাই নগরী, স্মার্ট সিটি বিনির্মাণ সহ নানা কর্মপরিকল্পনার কথা তুলে ধরে নগরবাসীর উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন। ভিডিওটির শুরুতেই মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নগরীতে যতটুকু কাজ করতে পেরেছেন তার সবটুকু নগরবাসীর আন্তরিকতা ও সহযোগিতায় সম্ভব হয়েছে উল্লেখ করে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী তাদের প্রতি কৃতঞ্জতা প্রকাশ করেন। বলেন, নগরবাসীর সহযোগিতা ছাড়া এসব কাজ করা সম্ভব হতোনা। এছাড়া সিসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানান ভিডিওটিতি। ভিডিও আপলোডের সাথে নগরীর সম্মানিত নাগরীকদের যে কোন মূল্যবান উপদেশ, পরামর্শ দয়া করে কমেন্ট বক্সে দেওয়ার অনুরোধ করেন জানানো হয়।

উল্লেখ্য, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের পরপর দুইবারের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী গত বছরের ৫ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় মেয়াদে শপথ গ্রহণ করেন। এর আগে গত ৩০ জুলাই সিসিক নির্বাচনে অনিয়মের কারণে দুটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়। সিসিকের বাকি ১৩২টি কেন্দ্রে আরিফুল হক চৌধুরী পেয়েছিলেন ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট এবং বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পেয়েছিলেন ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট। ওই ফলাফলে আরিফ ৪৬২৬ ভোটে এগিয়ে ছিলেন। কিন্তু স্থগিতকৃত দুই কেন্দ্রে ভোট সামান্য বেশি হওয়ায় আরিফকে বিজয়ী ঘোষণা করেনি নির্বাচন কমিশন। পরে ১১ আগষ্ট স্থগিত হওয়া ২টি কেন্দ্রের পূণ:নির্বাচনে তিনি দ্বিতীয় মেয়াদে সিসিকের মেয়র নির্বাচিত হন।