সুরমা তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলো সিসিক



সুরমা তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলো সিসিক

দীর্ঘ এক যুগ পর উচ্ছেদ হলো সিলেটে সুরমা নদীর তীরে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা । মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) বিকেলে বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় নদীর তীরে গড়ে তোলা ১৫টি দোকান।

একই দিনে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনের সড়কে ও নগরীর নবাব রোড, শেখঘাট এলাকার রাস্তার ওপরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ২০০৪ সালে সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী মরহুম এম সাইফুর রহমানের নির্দেশে সুরমা নদীর দুই তীর থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করে ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হয়।

মেয়র বলেন, ‘আমি কারাগারে থাকার সুযোগে নদীর তীর দখল করে দোকান ঘর তৈরি করা হয়। এখানে আর কোন অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করতে দেয়া হবে না। আগের ওয়াকওয়ের সাথে সংযোগ করে এখানে নির্মাণ করা হবে ওয়াকওয়ে। এতে নদীর তীরের সৌন্দর্য্যও বাড়বে।

অভিযানে সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবিব, সচিব বদরুল হক, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরিফুজ্জামান, প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান, নির্বাহী প্রকৌশলী আলী আকবরসহ সিসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশ নেন।