সিসিকের ৭৪৮ কোটি ৬৮ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা



সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (সিসিক) ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের জন্য ৭৪৮ কোটি ৬৮ লাখ ৪০ হাজার টাকার বাজেট

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (সিসিক) ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের জন্য ৭৪৮ কোটি ৬৮ লাখ ৪০ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। বাজেটে আয় ও সমপরিমাণ টাকা ব্যয় ধরে বাজেট ঘোষণা করা হয়।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টায় নগরের দরগাহ গেটস্থ একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এ বাজেট ঘোষণা করেন ।

বাজেট বক্তৃতায় মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, সিলেট নগরের উন্নয়ন নিশ্চিত, সমস্যা দূর হোক – এই আশা লালন করে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করছি ।

তিনি বলেন, সিলেট নগরের নাগরিকদের অধিকতর সুযোগ-সুবিধা প্রদান নিশ্চিত লক্ষ্যকে সামনে রেখে এবার সর্বমোট ৭৪৮ কোটি ৬৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা আয় ও সমপরিমাণ টাকা ব্যয় ধরে বাজেট প্রণয়ন করা হয়েছে ।

বাজেটে আয়ের মোটা দাগের খাতগুলো হলো হোল্ডিং টেক্স ১৭ কোটি ৬৫ লাখ ৪৪ হাজার টাকা, স্থাবর সম্পত্তি হস্থান্তরের উপর কর ৮ কোটি টাকা, ইমারত নির্মাণ ও পুনঃ নির্মাণের উপর কর ২ কোটি টাকা, পেশা ব্যবসার উপর কর ৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা, বিজ্ঞাপনের উপর কর ১ কোটি টাকা, বিভিন্ন মার্কেটের দোকান গ্রহিতার নাম পরিবর্তনের ফি ও নবায়ন ফি বাবদ ২০ লাখ টাকা, বাস টার্মিনাল ইজারা বাবদ আয় ৭৫ লাখ টাকা, খেয়াঘাট ইজারা বাবদ ১৫ লাখ টাকা, সিটি কর্পোরেশনের সম্পত্তি ভাড়া বাবদ ৮০ লাখ টাকা, রাস্তাকাটার ক্ষতিপূরণ বাবদ আয় ২০ লাখ টাকা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খাতে আয় ৮০ লাখ টাকা, পানির সংযোগ লাইনের মাসিক চার্জ বাবদ ৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা, পানির লাইনের সংযোগ ও পুনঃসংযোগ ফি বাবদ ১ কোটি টাকা, নলকূপ স্থাপনের অনুমোদন ও নবায়ন ফি বাবদ ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

বাজেটে উল্লেখযোগ্য ব্যয়ে খাতের মধ্যে রাজস্ব খাতে ৬১ কোটি ৪২ লাখ ৫৫ হাজার টাকা, রাজস্ব খাতে অবকাঠামো উন্নয়ন বাবদ ৫৩ কোটি ২০ লাখ টাকা, সরকারি উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) খাতে ২০ কোটি টাকা, সরকারি মঞ্জুরি খাতে ৪০ কোটি টাকা, অবকাঠামো নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পে ১০০ কোটি টাকা নগরীর ১১টি ছড়া সংরক্ষণ ও আরসিসি রিটেইনিং ওয়াল নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পে ১১৬ কোটি টাকা, দক্ষিণ সুরমা বাস টার্মিনাল আধুনিকায়ন প্রকল্পে ৫০ কোটি টাকা, দক্ষিণ সুরমা সাইফুর রহমান পার্কে রাইড স্থাপন প্রকল্পে ১৫ কোটি টাকা, সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন ও অন্যন্য কাজে জমি অধিগ্রহণ বাবাদ ৭০ কোটি টাকা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্যানিটারি ল্যান্ড ফিল্ড নির্মাণ প্রকল্প বাবদ ৫০ কোটি টাকা, আরবান প্রাইমারি এনভায়রন সেন্টার হেলথ সেক্টর ডেভোলাপমেন্ট খাতে ৫০ কোটি টাকা প্রভৃতি।

বাজেট ঘোষণা উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ জেড নুরুল হক, প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমানসহ সিটি কর্পোরেশনের সকল কাউন্সিলরগণ উপস্থিত ছিলেন।